আইসোলেশনে কি খাবার খেলে তাড়াতাড়ি সুস্থ হবেন

|

সারাবিশ্বে প্রতিদিনই উপসর্গ ছাড়াও অনেক করোনা রোগী শনাক্ত হচ্ছে। এ রোগীদের হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

এসব রোগীর চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী ওষুধ খাওয়ার পাশাপাশি খাবারের প্রতি যত্নশীল হতে হবে।

এখন প্রশ্ন হলো– হোম আইসোলেশনে কী খাবেন? এই প্রশ্নের উত্তর জানিয়েছেন ক্লিনিক্যাল নিউট্রিশনিস্ট ও ডায়েটিশিয়ান ডা. অরিজিৎ দে।

তিনি বলেন, এ সময় খাবারের প্রতি যত্নশীল হতে হবে। কিছু খাবার রয়েছে যা খেলে রোগী দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবেন।

কী খাবেন-

১. দুধ রাখুন প্রতিদিনের খাবার তালিকায়। দই-দুধ ও ছাঁচ প্রোবায়োটিক জাতীয় খাবার খান। এসব খাবার অন্ত্রে পৌঁছবে উপকারী ব্যাক্টেরিয়া। এই ব্যাক্টেরিয়াগুলো ক্ষতিকর ভাইরাস বা ব্যাক্টেরিয়ার বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলে দ্রুত সারবে করোনা সংক্রমণ।

২. পিএইচযুক্ত খাবার খেলে করোনাকে ঠেকানো সম্ভব। মোসম্বি, পাতিলেবু, পাকা পেঁপে, আমন্ড বাদাম, আনারসে রয়েছে প্রচুর পিএইচ।

৩. লবণ দৈনিক মাত্র ৫ গ্রামের বেশি খাওয়া যাবে না। ডা. দে জানিয়েছেন– লবণে প্রচুর পরিমাণ সোডিয়াম রয়েছে। তা রক্তচাপ বাড়িয়ে দেয়। এ সময় রক্তে অক্সিজেন স্যাচুরেশন কমতে থাকে। তাই উচ্চরক্তচাপ বিপদ ডেকে আনতে পারে।

৪. মিষ্টি খেতে ইচ্ছে করলে চিনি না খেয়ে খেজুর ও টাটকা ফল খান। অতিরিক্ত চিনি ইনসুলিন হরমোনের কার্যকারিতা নষ্ট করে দেয়। শরীরে ইনসুলিনের মাত্রা কমে গেলে ভাইরাস ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে।

৫. ঘন ঘন সাবান পানি দিয়ে ২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে হাত ধুতে হবে।

৬. গলাব্যথা থাকলে প্রতিদিন চারবার গরম পানিতে লবণ দিয়ে গার্গল করুন। গরম পানি শ্বাসনালির ভাইরাসের প্রোটিন ভেঙে দেবে।

৭. অতিরিক্ত চা পান করলে শরীরে ডিহাইড্রেশন হয়। দিনে দুবারের বেশি চা পান করবেন না। খেতে পারেন গ্রিন টি খান।








Leave a reply