অর্শের ঘরোয়া প্রতিকার জেনে নিন

|

মলত্যাগের সময় রক্ত যায়, ব্যথা করে। মলদ্বারে গোটা গোটা কী যেন হয়েছে। সমাধানের পথ খুঁজে পায় না অনেকেই। কাউকে বলতেও পারে না। কারণ, এই রোগটা নিয়ে কথা বলতে বেশির ভাগ মানুষই লজ্জা পায়। শেষে অনেক ভুগে তবেই ডাক্তারের শরণাপন্ন হয়। ততক্ষণে জটিল পর্যায়ে পৌঁছে যায় এটি। তবে ডাক্তারের কাছে যাওয়ার আগেই যদি পাওয়া যায় সহজ ঘরোয়া সমাধান? হ্যাঁ, এমনই কিছু সমাধান নিয়ে একটি ভিডিও বার্তা প্রকাশ করেছেন ইংল্যান্ডের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসের (এনএইচএস) চিকিৎসক ডা. তাসনিম জারা। তাঁর পরামর্শগুলো হচ্ছে—

ইসপগুলের ভুসি
পাইলস রোগ সারাতে হলে প্রথমেই দরকার কোষ্ঠকাঠিন্য রোগের সমাধান। এজন্য ইসপগুলের ভুসি খুবই কার্যকর। পরিমাণমতো পানির সঙ্গে গুলিয়ে খেতে হবে ইসপগুলের ভুসি। বানানোর পর সঙ্গে সঙ্গে খেলে উপকার ভালো মেলে। সাধারণত দিনে দুই বার খেতে হয়। খাবার খাওয়ার পরে খাওয়ার নিয়ম। কেউ চাইলে অন্য যেকোনো সময়ও খেতে পারেন, নিষেধ নেই।

অলিভ অয়েল
পাইলস রোগের অন্যতম বড় প্রতিষেধক হচ্ছে অলিভ অয়েল। টয়লেটে যাওয়ার আগে মলদ্বারে অলিভ অয়েল ব্যবহার করুন। যন্ত্রণা উপশম হবে। এ ছাড়া রোজ এক চা চামচ অলিভ অয়েল খান। এটি দেহের প্রদাহ দ্রুত হ্রাস করতে সাহায্য করে।

আদা ও লেবুর রস
ডিহাইড্রেশন অর্শ রোগের অন্যতম আরেকটি কারণ। আদাকুচি, লেবু ও মধুর মিশ্রণ দিনে দুবার খান। এই মিশ্রণ নিয়মিত খেলে অর্শ রোগ দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আসে। এ ছাড়া দিনে অন্তত দুই থেকে তিন লিটার পানি খেলেও অনেকটা উপকার পাওয়া যায়।

র‍্যাডিশ জুস
র‍্যাডিশ হলো মূলা ঘরানার একটি সবজি। এই সবজি পাইলসের সমস্যায় অত্যন্ত উপকারী। এই সবজির রস খেলে উপকার পাবেন। প্রথমে কাপের চার ভাগের এক ভাগ দিয়ে শুরু করুন। তারপর পরিমাণ আস্তে আস্তে বাড়িয়ে আধাকাপে নিয়ে আসুন।

বরফ
ঘরোয়া উপায়ে পাইলস নিরাময় করার অন্যতম উপাদান বরফ। বরফ রক্ত চলাচল সচল রাখে এবং ব্যথা দূর করে দেয়। একটি কাপড়ে কয়েক টুকরো বরফ পেঁচিয়ে ব্যথার স্থানে ১০ মিনিট রাখুন। এভাবে দিনে বেশ কয়েকবার বরফ ব্যবহার করলে ভালো ফল পাবেন।

কাঁচা পেঁয়াজ
পাইলসের কারণে মলদ্বার থেকে রক্ত পড়ার যে সমস্যা তৈরি হয়, কাঁচা পেঁয়াজে তা অনেকটাই কমে। অন্ত্রের যন্ত্রণা প্রশমিত করতেও সাহায্য করে।

অ্যালোভেরা
বাহ্যিক (এক্সটারনাল) পাইলসের জন্য আক্রান্ত স্থানে অ্যালোভেরা জেল লাগিয়ে ম্যাসাজ করুন। এটি দ্রুত ব্যথা কমিয়ে দিতে সাহায্য করবে।

অভ্যন্তরীণ পাইলসের ক্ষেত্রে অ্যালোভেরা পাতার কাঁটার অংশ কেটে জেল অংশটুকু একটি প্লাস্টিকের প্যাকেটে ভরে ফ্রিজে রেখে দিন। এবার এই ঠাণ্ডা অ্যালোভেরা জেলের টুকরো ক্ষতস্থানে লাগিয়ে রাখুন। এটি জ্বালা, ব্যথা ও চুলকানি কমিয়ে দিতে সাহায্য করবে।








Leave a reply