সোমবার পর্যন্ত জেলেই থাকতে হবে, জামিন মেলেনি শুনেই হাউহাউ করে কেঁদে ফেলেন রিয়া

|

বৃহস্পতিবারের পর শুক্রবারও জামিনের মুখ দেখলেন না রিয়া চক্রবর্তী (rhea chakraborty)। আজকের রাতও বাইকুল্লা জেলেই কাটাতে হবে তাঁকে। জামিন না মেলায় নিজেকে সামলাতে পারেননি রিয়া। হাউহাউ করে কাঁদতে শুরু করেন তিনি।

বাইকুল্লা জেলেই এখন দিন কাটছে সুশান্ত সিং রাজপুত (sushant singh rajput) মামলার মূল অভিযুক্ত রিয়া চক্রবর্তীর। মাদক যোগে জড়িত থাকায় রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করেছে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব‍্যুরো। গতকালের পর আজ শুক্রবারও রিয়ার জামিনের আবেদন খারিজ করে দিল আদালত। ফলে আজকের রাতও জেলেই কাটাতে হবে সুশান্ত মামলার মূল অভিযুক্তকে। জানা গিয়েছে, আদালতের রায় শোনার পরেই হাউহাউ করে কাঁদতে শুরু করেন রিয়া।

অভিনেত্রীর আইনজীবী সতীশ মানশিন্ডে জানান, তাঁরা NDPS বিশেষ আদালতের নির্দেশের অপেক্ষায় রয়েছেন। তারপরেই সিদ্ধান্ত নেবেন। এরপর তিনি বোম্বে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হতে পারেন বলেও শোনা যাচ্ছে। সম্ভবত সোমবার হাইকোর্টে আপিল করতে পারেন রিয়ার আইনজীবী। অগত‍্যা শনি রবিবারও জেলেই কাটাতে হবে অভিনেত্রীকে।

মঙ্গলবার বিকেলে গ্রেফতার করা হয় রিয়া চক্রবর্তীকে। মাদক চক্রে জড়িত থাকার অভিযোগে তাঁকে গ্রেফতার করে NCB। বিকেল ৪টে নাগাদ মেডিক‍্যাল টেস্ট করাতে নিয়ে যাওয়া হয় রিয়াকে। জানা গিয়েছে, তাঁর করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

প্রথমে শোনা গিয়েছিল চার অভিযুক্তকে তাদের কাস্টডিতে রাখার জন‍্য আদালতে আপিল করবে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব‍্যুরো। তাদের আরও জেরা করা হবে বলে খবর। কিন্তু পরে NCB আধিকারিক জানান, রিয়াকে তাদের হেফাজতে রাখার প্রয়োজন নেই। ২১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত রিয়াকে জেল হেফাজতে রাখার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

এখনও পর্যন্ত ৯ জনকে মাদক মামলায় গ্রেফতার করেছে NCB। তাদের মধ‍্যে রয়েছেন রিয়া চক্রবর্তী, শৌভিক চক্রবর্তী, স‍্যামুয়েল মিরান্ডা, দীপেশ সাওয়ান্ত, কাইজান ইব্রাহিম, জায়েদ ভিলতারা, আব্বাস লাখানি, করন অরোরা, আব্দুল বসিত পরিহার। নারকোটিক ড্রাগস অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট‍্যান্সেস অ্যাক্ট এর আওতায় ২০, ২৭ ও ২৯ সেকশনে মামলা দায়ের হয়েছে এই ৯ জনের বিরুদ্ধে।








Leave a reply