নেটফ্লিক্সের নতুন ছবিতে আবারো ঝড় তুলবেন ‘ক্রিস হেমসওয়ার্থ’

|

হলিউডের জনপ্রিয় তারকাদের মধ্যে একজন ক্রিস হেমসওয়ার্থ। তিনি বিশ্বব্যাপী পরিচিত ‘থর’ চরিত্রটির জন্য। কোটি কোটি দর্শকের মন তিনি জয় করেছিলেন এই ‘থর’ চরিত্রের মাধ্যমে। গত বছরও নেটফ্লিক্সের প্রযোজনায় ‘এক্সট্রাকশন’ ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। যা আলোড়ন তুলেছিলো সিনেমাপ্রেমীদের মধ্যে।
বাংলাদেশের গল্প ও এখানে শুটিং হওয়ার জন্য এদেশের দর্শকের কাছে দারুণ আগ্রহের ছিলো ছবিটি। নানা বিষয়ে সমালোচনা তৈরি হলেও ছবিটি নেটফ্লিক্সের ইতিহাসে সর্বোচ্চ আয়ের স্থান দখল করে নিয়েছে।

সেই সাফল্যের পর আবারো ক্রিস হেমসওয়ার্থকে নিয়ে কাজ করতে চলেছে নেটফ্লিক্স। ছবির নাম ‘স্পাইডারহেড’। এখানে তার সঙ্গে আরো দেখা যাবে জনপ্রিয় দুই হলিউড তারকা মাইলস টেলার এবং জুর্নি স্মোললেটকে।

সিনেমাটি জর্জ স্যান্ডার্সের ছোট গল্পের রূপান্তর। যা প্রথম ‘দ্য নিউ ইয়র্কার’- এ ২০১০ সালে প্রকাশ পেলেও পরে এটি লেখকের বই ‘টেনথ অফ ডিসেম্বর’ -এ অন্তর্ভুক্ত হয়েছিলো। ধারণা করা হচ্ছে সিনেমাটির নেটফ্লিক্সের ব্যানারে আরো একটি বড় বাজেটের সিনেমা হতে যাচ্ছে। সিনেমাটি পরিচালনা করবেন ‘টপ গান : ম্যাভেরিক’- এর পরিচালক জোসেফ কোসিনস্কি।

তবে সিনেমাটিতে কাকে কোন চরিত্রে দেখা যাবে সে বিষয়ে এখনো কোনো কিছু জানায়নি জোসেফ।

উল্লেখ্য, ‘এক্সট্রাকশন’র পর নেটফ্লিক্সের সঙ্গে হেমসওয়ার্থের এটি দ্বিতীয় সিনেমা। ২০২০ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মার্কিন অ্যাকশন রোমাঞ্চকর চলচ্চিত্র ‘এক্সট্র্যাকশন’- এ অভিনয় করে দারুণ প্রশংসা পান ‘থর’খ্যাত এই অভিনেতা। সিনেমাটি পরিচালনা করেছেন স্যাম হারগ্রেভ ও চিত্রনাট্য রচনা করেছেন জো রুশো।

ক্রিস হেমসওর্থ (জন্ম ১১ অগাস্ট ১৯৮৩) [১][২] একজন অস্ট্রেলীয় অভিনেতা। তিনি অস্ট্রেলীয় টিভি ধারাবাহিক হোম এন্ড অ্যাওয়ে-তে কিম হাইড চরিত্রে (২০০৪) এবং থর চরিত্রে মার্ভেল সিনেমাটিক ইউনিভার্স নির্ভর থর (২০১১), দ্য অ্যাভেঞ্জার্স (২০১২), থর: দ্য ডার্ক ওয়ার্ল্ড (২০১৩), এবং অ্যাভেঞ্জার্স: এজ অব আলট্রন (২০১৫) চলচ্চিত্রগুলোতে অভিনয় করে সর্বাধিক পরিচিতি লাভ করেন। বিজ্ঞান কল্পকাহিনি নির্ভর চলচ্চিত্র স্টার ট্রেক (২০০৯), রোমহর্ষক রোমাঞ্চকর আ পারফেক্ট গেটওয়ে (২০০৯), হরর কমেডি দ্যা কেবিন ইন দ্যা উডস (২০১২), ডার্ক ফ্যান্টাসি অ্যাকশন চলচ্চিত্র স্নো হোয়াইট অ্যান্ড দ্য হান্টসম্যান (২০১২), যুদ্ধ ভিত্তিক রেড ডাউন (২০১২) এবং জীবনী ভিত্তিক স্পোর্টস ড্রামা চলচ্চিত্র রাশ (২০১৩) চলচ্চিত্র সমূহে অভিনয় করেছেন।

এছাড়াও ২০১৫ সালে, হেমসওর্থ অ্যাকশন থ্রিলার ছবি ব্ল্যাকহ্যাট, কমেডি ফিল্ম ভ্যাকেশন এবং জীবনী নির্ভর থ্রিলার ইন দ্যা হার্ট অব দ্যা সী [৩] এই চলচিত্রগুলোতে সফল ভাবে অভিনয় করেন। ক্রিস হেমসওর্থ সনি’স রোবটের ঘোস্টবাস্টার্স চলচিত্রে পার্শ্ব চরিত্রের ভূমিকায় অভিনয় করেন।








Leave a reply