‘দয়া করে শিল্পীদের ভিখারি বানাবেন না’

|

সংস্কৃতি অঙ্গনের মানুষদের নিয়ে বিরুপ ধারণা ঈতোমধ্যে তৈরি হয়েছে সাধারণ মানুষদের মাঝে। যে তারকাদের সাধারণ মানুষরা নিজের পকেটের টাকা খরচ করে দেখেন, যে তারকারা তাদের কাছে স্বপ্নের মানুষ, সে তারকাদের বর্তমানের সামাজিক অবস্থান সাধারণ মানুষের ভেতরে বিরুপ ধারণা তৈরি করে দিয়েছে। বিশেষ করে কিছু হলেই অপরের কাছে হাত পাতার বিষয়টি খুবই দৃষ্টিকটু মনে করছেন সাধারণ মানুষরা।

তার উপর সংস্কৃতি অঙ্গনের কিছু মানুষ নিজেদের স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে ক্যামেরার পেছনের কিছু মানুষদের সহায়তা করে মিডিয়া কাভারেজ নেওয়ায় বেশ বড় করে প্রকাশ্যে আসছে সহায়তার বিষয়টি। ফলে শিল্পীরা হচ্ছেন সাধারণ মানুষের কাছে অপমানের পাত্র। বিষয়টি নিয়ে বার মুখ খুলেছেন চলচ্চিত্র নির্মাতা অনন্য মামুন। যদিও এর আগে বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন নায়করাজ রাজ্জাকপূত্র অভিনেতা বাপ্পরাজ। তিনি মন্তব্য করেন, শিল্পীরা ত্রাণ বা ঈদে ২কেজি গরুর গোস্ত নয়, তারা কাজ চান। সিনেমা চান।

মঙ্গলবার শিল্পীদের সাধারণ মানুষের কাছে ভিখারি হিসেবে উপস্থাপন না করার আহ্বান জানিয়ে অনন্য মামুন বললেন, এবার ঈদে জাতির সামনে আমাদের ভিক্ষুক বানাবেন না।

প্রযোজক পরিচালক শিল্পী যাদেরকেই আমরা সাহায্য করছি এবং সেটা নিউজ করাচ্ছি। আমার মনে হয় সবাইকে ছোট করছি আমরা। সমাজের মানুষদের কাছে আমরা নিজেদের অবস্থান ছোট করছি। বাইরের লোকজনের কাছে আমরা এখন ভিখারির মত। সবাই উদাহরণ দেয় মিডিয়ার লোকদেরকে তো মরার আগে সবার কাছ থেকে ভিক্ষা নিয়ে মরতে হয়। এতে করে কিন্তু মেধা শূন্য হবে আমাদের মিডিয়া।

যারা সাহায্য করে বিশাল মিডিয়া কাভারেজ নিচ্ছেন সেটা কেনো করছেন তারও ব্যাখ্যা করছেন তিনি। এ বিষয়ে মামুন বলেন, নেতারা কাউকে সাহায্য করলেই সেটা বড় করে নিউজ করান। কিন্তু কেন? কারণ সামনের নির্বাচনে ভোটের আশায়। সবাইকে বোঝাতে হবে উনি বড় নেতা। এত কথা বলার কারণ সামনে ঈদ, এখন শুরু হয়ে যাবে সাহায্যের প্রতিযোগিতা। মানুষকে সাহায্য করা ভালো কাজ কিন্তু সেটা যেন কাউকে ছোট না করি। ভোট তো আপনাকে দেবে ভোটার যাকে আপনি সাহায্য করছেন, সে জানে আপনি ভালো মানুষ। জাতিকে জানিয়ে কি লাভ বলুন। দয়া করে এবার ঈদে জাতির সামনে আমাদেরকে ভিক্ষুক হিসাবে দাড় করাবেন না।’








Leave a reply