এই লাস্যময়ী এবার চলচ্চিত্রে

|

জনপ্রিয় মার্কিন সংগীতশিল্পী সেলেনা গোমেজকে ‘হোটেল ট্রান্সিলভেনিয়া’র পরবর্তী কিস্তিতে অভিনেত্রী হিসেবে দেখা যাবে । সম্প্রতি এই খবরই জানিয়েছে ভ্যারাইটি ডট কম।

করোনার এই কর্মবিরতির সময়ে বসে নেই তিনি। দিন কয়েক আগে মুক্তি পেয়েছে ব্ল্যাকপিংকের সঙ্গে তার প্রথম দ্বৈত গান ‘আইসক্রিম’। এরপর আরও বিভিন্ন প্রকল্প এবং নিজের বিউটি লাইন নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করেছেন জনপ্রিয় এই পপ তারকা।

এবার তিনি যুক্ত হলেন ‘ট্রান্সিলভেনিয়া ৪’ সিনেমায়। শুক্রবার ভ্যারাইটি তাদের এক প্রতিবেদনে জানায়, ‘গোমেজ সিনেমাটিতে অভিনয়ের পাশাপাশি একজন এক্সিকিউটিভ প্রযোজক হিসেবেও কাজ করবেন। ছবিটি পরিচালনা করবেন জেনিফার ক্লসকা এবং ডেরেক ড্রিমন। সিনেমাটি মুক্তি পাবার কথা রয়েছে সামনের বছরের ৬ আগস্ট।’

প্রসঙ্গত, সেলেনা গোমেজ বর্তমানে সেলেনা+শেফ নামক একটি এইচবিও ম্যাক্স সিরিজে অভিনয় করছেন। জনপ্রিয়তার কারণে সিরিজটির দ্বিতীয় সিজনের কাজ শুরু হয়েছে। সেই সাথে হুলি সিরিজের নির্বাহী নির্মাতা নির্মাতা হিসেবেও কাজ করার কথা রয়েছে তার।

সেলেনা গোমেজ (ইংরেজি: Selena Gomez) (জন্ম: ২২শে জুলাই, ১৯৯২[৪]) একজন মার্কিন সঙ্গীতশিল্পী এবং অভিনেত্রী। “বারনি এ্যন্ড ফ্রেন্ডস” টিভি সিরিজের মাধ্যমে সেলেনা প্রথমে আত্মপ্রকাশ করেন। এটি ২০০২ থেকে ২০০৪ পর্যন্ত চলে। সেলেনা গোমেজ স্পাই কিডস থ্রিডি গেম ওভার, ওয়াকার টেক্সাস র‍্যাঙ্গার ট্রায়াল বাই ফায়ার চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেন। এছাড়া তিনি ডিসনি চ্যানেলের দ্য স্যুট লাইফ অফ জ্যাক এন্ড কোডি সিরিজেও অতিথি শিল্পী হিসেবে অভিনয় করেন। এরপর তিনি ডিসনির উইজার্ডস অফ ওয়েভার্লি প্লেস সিরিজের অন্যতম প্রধান চরিত্রে অভিনয় করেন। এটি সাফল্য অর্জন করে এবং সেলেনা বিভিন্ন পুরস্কারের জন্য মনোনীত হন। পরবর্তিতে সেলেনা ডিসনি চ্যানেলের বিভিন্ন সিরিজ এবং চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। এর মধ্যে জোনাস ব্রাদারস: লিভিং দ্য ড্রিম, ডিসনি চ্যানেল গেমস উল্লেখযোগ্য। ২০০৯ সালে সেলেনা প্রিন্সেস প্রোটেকশন প্রোগ্রাম এবং উইজার্ডস অফ ওয়েভার্লি প্লেস দ্য মুভি চলচ্চিত্র দু’টিতে অভিনয় করেন। এরপর সেলেনা কিস অ্যান্ড টেল নামে তার প্রথম অ্যালবাম প্রকাশ করেন। অ্যালবামটি বাণিজ্যিক সাফল্য অর্জন করে এবং বিলবোর্ডের সেরা ২০০ অ্যালবামের শীর্ষ দশে স্থান লাভ করে।

ডিসনির বাইরে সেলেনা র‍্যামোনা অ্যান্ড বিজাস চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। সেলেনা ও তার সঙ্গীত দল তাদের দ্বিতীয় অ্যালবাম এ ইয়ার উইথআউট রেইন প্রকাশ করে। এটি বিলবোর্ডের শীর্ষ ৫ এ স্থান লাভ করে। ২০১১ সালে আরেক টিন সঙ্গীত তারকা জাস্টিন বিবার-এর সাথে সেলেনা গোমেজের সম্পর্কের খবর গণমাধ্যমে বহুল প্রচারিত হয়। এই দুইজনকে গণমাধ্যমে “জেলিনা” নামে অভিহিত করে। ২০১১ সালে সেলেনা মন্টে কার্লো এবং দ্য মাপেটস চলচ্চিতে অভিনয় করেন। একই বছরে তিনি হোয়েন দ্য সান গোজ ডাউন অ্যালবাম প্রকাশ করেন। এই অ্যালবামের লাভ ইউ লাইক এ লাভ সং গানটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করে। এই অ্যালবামটি প্রকাশের পরে সেলেনা গোমেজ অভিনয়ে আরও মনোযোগ ও সময় দেবার জন্য তার সঙ্গীত চর্চায় কিছুটা বিরতি দেন। ২০১২ সালে হোটেল ট্রান্সিলভানিয়া এবং স্প্রিং ব্রেকার্স চলচ্চিত্র দু’টিতে অভিনয় করেন।

সঙ্গীতে বিরতি দেবার কথা বললেও সেলেনা ২০১২ এর অক্টোবরে প্রকাশ করেন যে তিনি তার প্রথম একক অ্যালবামের কাজ করছেন। ২০১৩ এর ৮ই এপ্রিল[৫] অ্যালবামটির শীর্ষ গান কাম এন্ড গেট ইট প্রকাশিত হয়। বিলবোর্ড হট ১০০ তালিকার শীর্ষ দশে গানটি স্থান অর্জন করে। জুনে অ্যালবামের দ্বিতীয় গান স্লো ডাউন প্রকাশিত হয়। সেলেনা এর প্রথম একক অ্যালবাম, স্টারস ড্যান্স,, ২৩শে জুলাই ২০১৩তে মুক্তি পায়।[৬] অ্যালবামটি প্রকাশের পর সেলেনা গোমেজ আবার বলেন যে তিনি দ্বিতীয়বারের মত সঙ্গীতে বিরতি নেবেন। ২৪শে নভেম্বর ২০১৪তে মুক্তি পায় তার সংকলন অ্যালবাম ফর ইউ । এরপরই তিনি ইন্টারস্কোপের সাথে নতুন রেকর্ড কন্ট্রাক্ট সাক্ষর করেন। তার দ্বিতীয় একক অ্যালবাম রিভাইভাল ০৯ই অক্টোবর, ২০১৫তে মুক্তি পাবে।[৭] বিনোদন জগতের বাইরে সেলেনা গোমেজ জনকল্যাণমূলক এবং সামাজিক ও পরিবেশ সংক্রান্ত কাজে জড়িত।








Leave a reply