রান্নায় নুন-চিনি বেশি পড়ে যায়? সাহায্য করবে রোবট

|

নুন, ঝাল, টক, মিষ্টি ঠিক পড়েছে কি না, রান্নার সময়ে তা বোঝা জরুরি। এ বার এ সব কাজই করে দিতে পারবে একটি রোবট।

রান্নায় যেমন জরুরি হাত, তেমনই দরকার হল জিভ! যিনি রান্না করছেন, তাঁর হাতের গুণে স্বাদ হয় ঠিকই। তবে যিনি তা প্রথমে চেখে দেখছেন, তাঁরও গুণ থাকতে হবে। তবে কি না বোঝা যাবে, রান্নার স্বাদ ঠিক হচ্ছে কি না!

নুন, ঝাল, টক, মিষ্টি ঠিক পড়েছে কি না, রান্নার সময়ে তা বোঝা জরুরি। সব্জি-মাংস ঠিক ভাবে সেদ্ধ হল কি না, তা-ও জানতে হয়। তার জন্য খাবারটি চেখে দেখতে হয় বার বার। চিবিয়েও দেখতে হয়। শুনতে হালকা মনে হলেও, রান্নাঘরের এই কাজ নেহাত সহজ নয়।

এ বার এ সব কাজই করে দিতে পারবে একটি রোবট।
কিছু দিন ধরেই এক রোবটকে বুবার্চি বানিয়ে তোলার কাজ চলছে। ইতিমধ্যে সে রোবট শিখে গিয়েছে অমলেট বানাতে। এ বার কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক সেই রোবটের উপরে আরও গবেষণার কাজ চালিয়ে, সেটির কার্যক্ষমতা বাড়িয়ে দিয়েছে। গবেষকরা এ সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। তাতে জানানো হয়েছে, কোনও খাবার চেখে দেখতে দিলে তা চিবিয়ে দেখবে রোবট। ধাপে ধাপে মশলা আর নুনের মাত্রা ঠিক আছে কি না।

গবেষকদের বক্তব্য, কোনও রোবটকে বাবুর্চি বানিয়ে তুলতে গেলে তার খাবারের স্বাদ বোঝার ক্ষমতা থাকতে হবে। না হলে সেই ‘রোবট শেফ’ ভাল রান্না করবে কী করে?

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের গবেষকরা এই কাজটি করছেন রান্নাঘরের আধুনিক সামগ্রী প্রস্তুতকারক একটি সংস্থার উদ্যোগে। ‘রোবট বাবুর্চি’কে পুরো তৈরি করে ফেলা গেলে রান্নার কাজ অনেক সহজ হয়ে যাবে বলেই আশ্বাস গবেষকদের।








Leave a reply