অর্থ উপার্জনের অভিনব পন্থা! বায়ুনিসঃরন করে ১৮ লক্ষ টাকা উপার্জন করেন এই মার্কিনী মহিলা

|

এখন অনলাইনের (Online) যুগ। কি না সম্ভব হচ্ছে এখন এই ভার্চুয়াল জগতে। তাই বলে অনলাইনে বাতকর্ম (Fart) সেরে ১৮ লক্ষ টাকা উপার্জন! এও কি সম্ভব? আজ্ঞে হ্যাঁ সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে অর্থ উপার্জনের এমনই এক আজব পন্থা বেছে নিয়েছেন মার্কিন মুলুকের বাসিন্দা এক মহিলা। জানা গেছে মার্কিন ওই মহিলার নাম লুশ বোটানিস্ট (Lush Botanist) । তিনি একজন পেশায় অ্যাডাল্ট স্টার।

তবে মাঝে মধ্যেই ইউ টিউবার হিসাবেও ভিডিও তৈরি করে থাকেন লুশ। কিন্তু সেটা বাতকর্ম করার ভিডিও। আর এভাবেই অনলাইনে বাতকর্ম করে তিনি ভাইরাল তো হয়েইছেন,সেইসাথে ভারতীয় মূল্যে ১৮ লক্ষ টাকারও বেশি অর্থ উপার্জন করে থাকেন। যা শুনে স্বভাবিকভাবেই মনে প্রশ্ন জাগে, পৃথিবীতে অর্থ উপার্জনের এত উপায় থাকতে হঠাৎ এই বিশেষ পদ্ধতি টাকেই তিনি কেন বেছে নিয়েছেন।

এই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন লুশ নিজেই। একবার এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান তাঁর পরিচিত এক ব্যক্তি তাঁকে এই ধরনের ভিডিও বানানোর পরামর্শ দিয়েছিলেন। এমনকি বাতকর্ম নিয়ে বিভিন্ন ধরনের ভাবনা চিন্তা করারও পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল তাঁকে। তবে শুরুর দিকে বিষয়টি তাঁর কাছে মোটেই সহজ ছিল না।

এই বাতকর্ম এমনই একটি বিষয় যা নিয়ে মানুষের মধ্যে বরাবরই কোথাও লজ্জা কিংবা অদ্ভুত এক অস্বস্তি কাজ করে। যা শুনেই বেশীরভাগ মানুষই হেসে গড়িয়ে পড়েন। তবে এসব নিয়ে লুশের কোনো মাথাব্যথা নেই। উল্টে তিনি নিজেই নিজেকে স্বঘোষিত ‘ফার্ট ক্যুইন’ বলে সম্বোধন করে থাকেন।

বাতকর্ম নিয়ে ভিডিও করতে হয় বলে নিজের ডায়েট নিয়েও বেশ সচেতন লুশ। তাই পনির সহ বিভিন্ন দুগ্ধজাত খাবারই তিনি খেয়ে থাকেন। তাই একটি আদর্শ বাতকর্মের ভিডিও বানাতে যথেষ্ট খরচও হয় তাঁর। আর সেই কারণেই এক একটি বাতকর্মের ভিডিও তৈরি করতে ভারতীয় মূল্যে প্রায় ১২ হাজার টাকা নিয়ে থাকেন লুশ বোটানিস্ট।








Leave a reply